অভিষেক ফিফটির পর শ্রেয়স আয়ারের উদযাপন। ছবি : এএফপি

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে আজ বৃহস্পতিবার অভিষেক হয়ে গেল ভারতের তরুণ ব্যাটার শ্রেয়স আয়ারের। ২০১৯ সালে শেষ প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলা শ্রেয়সকে দলে নেওয়ায় বাদ পড়তে হয়েছে হনুমা বিহারীকে। সাদা বলের ক্রিকেটে মিডল অর্ডারে বড় ভরসা শ্রেয়স। তবে ২০১৯ সাল পর্যন্ত প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটেও তিনি দারুণ করেছেন। ৫৪টি ম্যাচে রান করেছেন ৪৫৯২। শ্রেয়সকে রাহুল দ্রাবিড়ের প্রিয় পাত্র বলেও শোনা যায়। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তিনি ৭৫ রানে ব্যাট করছেন।

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১২টি সেঞ্চুরি করেছেন শ্রেয়স। সর্বোচ্চ অপরাজিত ২০২ রান। গড় ৫২.১৮। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২০১৭ সালে অভিষেক প্রায় হয়েই যাচ্ছিল শ্রেয়সের। কিন্তু ইনজুরি আক্রান্ত বিরাট কোহলির বদলে অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে বাড়তি একজন বোলার নিয়েছিলেন। যে কারণে শ্রেয়সের অপেক্ষা আরও বেড়ে যায়। তবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে যে তিনি নামছেন, সেটা আগেই ঘোষণা করেছিলেন রাহানে। দুজনেই আইপিএল দল দিল্লি ক্যাপিটালসে খেলে থাকেন।

২০১৬ সালে দিল্লি ফ্র্যাঞ্চাইজির মেন্টর ছিলেন দ্রাবিড়। সেবার দলের একাদশ থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন শ্রেয়স। ভারত 'এ' দলেও তার প্রায়ই জায়গা হতো না। কিন্তু এক বছরের মধ্যেই দ্রাবিড়ের মন জয় করে নেন শ্রেয়স। এই সময়ে তিনি ক্রিজে অনেক বেশি সংবেদনশীল হয়ে ওঠেন। দলের জন্য ক্রিজে থেকে ম্যাচ জেতাতেও শুরু করেন এই তরুণ ব্যাটার। ভবিষ্যতেদলের মিডল অর্ডারে তাকে ভাবা হচ্ছে বলেও কানাঘুষা চলছে। ভবিষ্যতে টেস্ট দলে শুভমন গিল, সূর্যকুমার যাদবকেও দেখা যেতে পারে।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews