মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চিকে সেনাবাহিনীর নির্মিত একটি নির্জন কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এতদিন তিনি গৃহবন্দী ছিলেন।

মিয়ানমারের জান্তা সরকারের মুখপাত্র জাও মিন তুন একটি বিবৃতিতে বলেন, বুধবার থেকে নাইপিদোর নির্জন কারাগারে আছেন সু চি। আইন অনুযায়ী তাকে সেখানে রাখা হয়েছে।

গত বছর মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানে পর ক্ষমতা হারান অং সান সু চি। এরপর থেকে নাইপিদোতে একটি বাড়িতে গৃহবন্দী ছিলেন তিনি।  

এ সময়ের মধ্যে ৭৭ বছর বয়সী নোবেল বিজয়ী সু চি শুধুমাত্র আদালতে বিচারের শুনানিতে অংশ নেওয়ার জন্য বের হতেন। সু চির বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার ১৫০ বছরের বেশি কারাদণ্ড হতে পারে।  

এরইমধ্যে সু চির আইনজীবীকে গণমাধ্যমে কথা না বলার জন্য নির্দেশ দিয়েছে মিয়ানমারের জান্তা সরকার। এর আগেও মিয়ানমারে সেনা শাসনের সময় ইয়াঙ্গুনে দীর্ঘ সময় গৃহবন্দী ছিলেন সু চি।  

সু চির বিরুদ্ধে দুর্নীতি, সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে উসকানি, করোনাবিধি ও টেলিকমিউনিকেশন আইন ভাঙার অভিযোগ আনা হয়েছে।  ইতিমধ্যে তাকে ১১ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।  

সূত্র: এনডিটিভি

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩১ ঘণ্টা, জুন ২৩, ২০২২
ইআর 



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews