জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎজ বহুল আলোচিত লিওপার্ড-২ ট্যাংক ইউক্রেনে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এছাড়া ইউরোপের অন্য দেশগুলোর কাছে থাকা এ ট্যাংকও কিয়েভে পাঠানোর অনুমতি দেবে দেশটি।

বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

এতদিন বিভিন্ন দেশ থেকে ট্যাংক পাঠানোর কথা থাকলেও জার্মানির অনুমতির জন্য অপেক্ষা করছিল ন্যাটোভুক্ত দেশগুলো। বার্লিনে মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) দেশটির নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রী বোরিস পিস্তোরিয়াসের সঙ্গে বৈঠক করেন ন্যাটোপ্রধান। এরপরেই জার্মানি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

লিওপার্ড-২ ট্যাংক জার্মানিতে তৈরি করা হয়েছে এবং তাদের কাছ থেকে এ ট্যাংক কিনেছে আরও অনেক দেশ। তবে যেসব দেশের কাছে লিওপার্ড-২ আছে তারা যদি তৃতীয় কোনো দেশে এটি পাঠাতে চায় তাহলে জার্মানির অনুমতি লাগে।

ইউক্রেন পশ্চিমাদের কাছে অন্তত ৩০০টি ট্যাংক চেয়ে আসছে। যদিও এতগুলো পাওয়া সম্ভব নয়। কিন্তু যেসব দেশের কাছে ট্যাংক আছে সেসব দেশ যদি ১২টি করেও ট্যাংক পাঠায় তাও এটি ১০০ ছাঁড়িয়ে যাবে। যা রাশিয়ানদের প্রতিহত করতে ইউক্রেনীয়দের জন্য অনেক বেশি সহায়ক হবে।

তবে ইউক্রেন ট্যাংক পেলে যুদ্ধের মোড় রাতারাতি ঘুরে যাবে এমনটিও বলা যাবে না। বর্তমানে আকাশ শক্তিতে ইউক্রেনের চেয়ে এগিয়ে আছে রাশিয়া। যেগুলো ব্যবহার করে প্রায়ই ইউক্রেনে বড় হামলা চালাচ্ছে দেশটি। ফলে রাশিয়ার আকাশ হামলা ঠেকাতে ইউক্রেনেরও অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান প্রয়োজন। পশ্চিমা মিত্রদের কাছে যুদ্ধের শুরু থেকে বিমান চেয়ে আসছে কিয়েভ। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো দেশ বিমান দিতে রাজি হয়নি।

বিজ্ঞাপন



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews