বর্তমানে দুনিয়াজুড়ে ব্যক্তিগত ও পারিবারিক জীবনের দৈনন্দিন কেনাকাটা ও লেনদেনে এক অপরিহার্য উপাদান হলো ক্রেডিট কার্ড। ওয়ালেটে বা পকেটে একটি ক্রেডিট কার্ড থাকলে শুধু দেশেই নয়, বিদেশেও হোটেলের রুম ও বিমান টিকিটের বুকিং, রেস্টুরেন্টে খাবার ও হাসপাতালের চিকিৎসা ও বিভিন্ন ধরনের কেনাকাটার বিল অনায়াসে পরিশোধ করা যায়। নগদ টাকা বহনের ঝুঁকি এড়াতেও ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের জুড়ি নেই। প্রয়োজনে নির্দিষ্ট পরিমাণ ঋণও নেওয়া যায়। এর ওপর খরচের টাকা সময়মতো পরিশোধ করলেই কোনো সুদ দিতে হয় না। সেই সঙ্গে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের বিপরীতে রয়েছে নানা ধরনের ছাড় ও সুবিধা। ফলে মানুষ দিন দিন ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারে ঝুঁকছে।

একটি প্লাস্টিক কার্ডের মাধ্যমে স্বাচ্ছন্দ্যময় কেনাকাটা ও লেনদেন করার সুযোগটি মানুষের সামনে হঠাৎ করে আসেনি। এর পেছনে রয়েছে নগদ লেনদেনের জুতসই বিকল্প খুঁজে পাওয়ার সুদীর্ঘ এক আকাঙ্ক্ষা। এখন থেকে ১৩৪ বছর আগে ১৮৮৭ সালে প্রখ্যাত ঔপন্যাসিক এডওয়ার্ড ব্যালামি তাঁর লুকিং ব্যাকওয়ার্ড নামের কল্পকাহিনিভিত্তিক উপন্যাসে প্রথমবারের মতো ক্রেডিট কার্ডের প্রসঙ্গ তোলেন, তা–ও ১১ বার। তবে প্রথম উদ্যোগটি দেখা যায় শতবর্ষ আগে ১৯২০ সালে, যা পরিপূর্ণভাবে আলোর মুখ দেখতে আরও কয়েক দশক লেগে যায়। আসুন, চমকপ্রদ সেই গল্প, সেই ইতিহাস শোনা যাক:



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews