নন্দিত চিত্রনায়ক আলমগীরের অভিনয় জীবনের সুবর্ণ জয়ন্তী পূর্ণ হচ্ছে। ১৯৭২ সালের ২৪ জুন আলমগীর কুমকুম পরিচালিত ‘আমার জন্মভূমি’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে প্রথমবার ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান তিনি।

শুক্রবার (২৪ জুন) অভিনয় জীবনের পঞ্চাশ বছর পূর্ণ করবেন তিনি।  

দীর্ঘ এই ক্যারিয়ার নিয়ে আলমগীর জানিয়েছেন, ‘আমি সিনেমা খাই, সিনেমা পান করি, সিনেমাতে ঘুমাই, সিনেমাই আমার সব’।

মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ‘আমার জন্মভূমি’ এবং ‘দস্যুরানী’ নামের দুটি সিনেমা একসাথে মুক্তি পেয়েছিল ১৯৭৩ সালের ২৪ অক্টোবর, ঈদের দিন। মাত্র ২২ বছর বয়সে ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছিলেন আলমগীর। এরপর থেকে ৫০ বছর চলচ্চিত্রের সাথেই আছেন তিনি।  

দীর্ঘ এই ক্যারিয়ার পারি দিয়ে আলমগীর বলেন, ‘এখনো সুঅভিনেতা হতে পারিনি। কারণ শিল্পী হওয়া এত সহজ নয়। অভিনয়ে পূর্ণমান ১০০-তে নিজেকে পাস মার্কস দিতে রাজি; এর বেশি নয়’।  

কথাগুলো তিনি বলেছেন মাছরাঙা টেলিভিশনের নিয়মিত আয়োজন ‘রাঙা সকাল’ অনুষ্ঠানে।

বাংলাদেশের অভিনয়শিল্পীদের মধ্যে ৯ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ আজীবন সম্মাননা পদক পাবার রেকর্ড নায়ক আলমগীরেরই রয়েছে। ১৯৮৫ সালে প্রথম ‘মা ও ছেলে’ চলচ্চিত্রের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান তিনি। ১৯৮৯ থেকে ১৯৯২ টানা ৪ বছর শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়ে নতুন এক রেকর্ড গড়েছিলেন তিনি, যা আজও কেউ ভাঙতে পারেনি।  

আলমগীরকে নিয়ে ‘রাঙা সকাল’র বিশেষ পর্বটি প্রচার হবে শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে ৯টায়। রুম্মান রশীদ খান ও লাবণ্য’র উপস্থাপনায় মাছরাঙা টেলিভিশনের এই আয়োজনটি প্রযোজনা করেছেন জোবায়ের ইকবাল।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৮ ঘণ্টা, জুন ২৩, ২০২২
জেআইএম



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews