সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে মালদ্বীপকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে ভারত। মালদ্বীপের রাজধানী মালের রাশমি ধান্দু স্টেডিয়ামে বুধবার (১৩ অক্টোবর) স্বাগতিকদের ৩-১ গোলে হারায় সুনীল ছেত্রীরা। দিনের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের সঙ্গে ১-১ ড্র করে প্রথমবারের মতো ফাইনালে ওঠে নেপাল। আগামী ১৬ অক্টোবর সাফের ত্রয়োদশ আসরের শিরোপা লড়াইয়ে নামবে এই ভারত ও নেপাল।

ভারতের ফাইনালে ওঠার ম্যাচে দারুণ এক কীর্তি গড়েছেন দেশটির সর্বোচ্চ গোলদাতা সুনীল ছেত্রী। এই ম্যাচে দুই গোল করার পথে জাতীয় দলের হয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকায় ব্রাজিলের কিংবদন্তি ফুটবলার পেলেকে পেছনে ফেলেছেন তিনি। নেপালের বিপক্ষে ১-০ গোলে জেতা ম্যাচে লক্ষ্যভেদ করে কিংবদন্তি পেলের পাশে বসেছিলেন ছেত্রি।

২২তম মিনিটে ভারতকে এগিয়ে নেন মানভির সিং। ডান দিক দিয়ে একক প্রচেষ্টায় আক্রমণে ওঠা মানবির ডান পায়ের নিখুঁত শটে লক্ষ্যভেদ করেন। বলের লাইনে মালদ্বীপ গোলরক্ষক থাকলেও আটকাতে পারেননি। ৪৫তম মিনিটে আলি আশফাক স্পট কিক থেকে সমতা ফেরান। প্রিতম কোটাল বক্সে হামজা মোহামেদকে ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি। ভারত আপত্তি তুললেও কাজ হয়নি।

৬২তম মিনিটে দারুণ ভলিতে ভারতকে এগিয়ে নেন ছেত্রী। এ গোলেই ব্রাজিলের তিন বিশ্বকাপ জয়ী পেলেকে (৭৭টি) পেছনে ফেলেন ভারতের এই ফরোয়ার্ড। ৯ মিনিট পর সতীর্থের ফ্রি কিকে দৃষ্টিনন্দন হেডে ব্যবধান আরও বাড়ান ছেত্রী। জাতীয় দলের হয়ে ৩৭ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডের গোল হলো ৭৯টি। সাফের রেকর্ড সাতবারের চ্যাম্পিয়নদের ফাইনালে ওঠা নিশ্চিত হয়ে যায় অনেকটাই।

ভারতের জয়ের আনন্দে কিছুটা কালির ছাপও পড়েছে। ৮০তম মিনিটে দলটির কোচ ইগর ইস্তিমাচকে মাঠ ছেড়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন রেফারি। সিদ্ধান্ত নিয়ে বারবার আপত্তি জানানোয় প্রথমার্ধে তাকে হলুদ কার্ড দেখিয়েছিলেন রেফারি। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখেন ভারতের শুভশিস বোস। নেপালের বিপক্ষে ফাইনাল খেলতে পারবেন না এই ডিফেন্ডার।



বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews