পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, সেরাম ইনস্টিটিউটের করোনার টিকার চুক্তি থেকে বের হওয়ার আইনি সুযোগ নেই ভারতের। 

তিনি বলেছেন, আইন সে কথা বলে না। তবে টিকা প্রদানে ভারতের নিজেরই সক্ষমতায় ঘাটতি তৈরি হয়েছে। এ কারণে কিছুটা সমস্যা হয়েছে। 

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে ব্রিফিংয়ে এ মন্তব্য করেছেন মন্ত্রী। একনেকের বৈঠক শেষে অনলাইনে মন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এ ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়। 

টিকা সংক্রান্ত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনামন্ত্রী আরও বলেন, চুক্তি অনুযায়ী নৈতিকভাবে টিকা দিতে বাধ্য ভারত। তবে তারা আমাদের প্রতিবেশি। সেখানে করোনায় কি মারাত্মক সংক্রমণ চলছে, সেটা আমরা জানি। এ কারণে তাদেরও নিজেদেরই করোনার টিকার সংকট তৈরি হয়েছে। তবে টিকা সংগ্রহে সরকার বসে নেই। বিকল্প চ্যানেল থেকে টিকা সংগ্রহের কাজ চলছে। তবে একনেকের মূল বৈঠকে করোনার টিকা নিয়ে কোনো কথা হয়নি। 

ব্রিফিংয়ে পরিককল্পনা সচিব মোহাম্মদ জয়নুল বারী, বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের ( আইএমইডি) সদস্য এবং সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী, ভৌত অবকাঠামো বিভাগের সদস্য সচিব মামুন-আল-রশীদ, আর্থ সামাজিক অবকাঠামো বিভাগের সদস্য সচিব নাসিমা বেগম, শিল্প শক্তি বিভাগের সদস্য এবং চিব শরিফা খানসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews