কানাডায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমায় বিভিন্ন প্রদেশে উদযাপিত হয়েছে ঈদুল আজহা। দীর্ঘ বিরতির পর ঈদের দিন প্রবাস জীবনে বাঙালিরা মিলিত হয় একে-অপরের সঙ্গে।

প্রায় দুই বছর বিরতির পর স্বাস্থ্যবিধি শিথিল হওয়ায় প্রবাসীরা নতুন আমেজে ভিন্ন মাত্রায় উদযাপন করছে ঈদুল আজহা।

কানাডাপ্রবাসী বাংলাদেশিরা ঈদের নামাজ শেষে চলে যান কোরবানি দিতে। কানাডায় নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানি দেওয়া বাধ্যতামূলক। নির্ধারিত ফার্মগুলোতেই কোরবানি দিয়েছেন প্রবাসীরা। ঈদের এদিন এখানে কারো কারো থাকে কর্মদিবস। তবু খুব ভোরে নতুন পোশাক পরে আগেভাগে বের হয়ে পড়েন ঈদের নামাজ আদায় করতে।

মসজিদে নামাজ শেষে পরিবার-পরিজন নিয়ে বের হন। ঘুরতে যান বন্ধুবান্ধব ও আত্মীয়-স্বজনের বাসায়। 

প্রবাসে ঈদ উদযাপন নিয়ে এবিএম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট ড. মো. বাতেন বললেন, বাংলাদেশের মত আনন্দ করে এখানে ঈদ হয় না। দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে আমরা খুবই উদ্বিগ্ন। সবাই ভ্যাকসিন নেবে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলবে, সবাই দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে পরম করুণাময়ের কাছে এটাই আমাদের প্রার্থনা।

বিশিষ্ট কলামিস্ট ও উন্নয়ন গবেষক মো. মাহমুদ হাসান বলেন, মহান সৃষ্টিকর্তার কৃপায় বিজ্ঞানের কল্যাণে উত্তর আমেরিকায় এবারের ঈদ ভিন্ন আমেজেই উদযাপিত হচ্ছে। দীর্ঘ সামাজিক বিচ্ছিন্নতার পর বিধিনিষেধ মুক্ত পরিবেশ উজ্জীবিত করেছে প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটিতে।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews