প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নির্বাহী বিভাগের ক্ষমতা তিনি ইতিমধ্যেই ব্যবহার করেছেন। ১৭ নভেম্বর তিনি বলেছেন, ‘আমার হাতে যেটুকু পাওয়ার, সেটুকু আমি দেখিয়েছি। এখানে আমার কিছু করার নাই। আমার যেটা করার, আমি করেছি। এটা এখন আইনের ব্যাপার।’ কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, সেটাও প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট করেছেন, ‘খালেদা জিয়াকে যে কারাগার থেকে বাসায় থাকতে দিয়েছি, চিকিৎসা করতে দিয়েছি, এটাই কি বেশি নয়?’ আইনের প্রশ্নটি তুলেছেন বিএনপি–সমর্থক আইনজীবীদের একটি দলও। তাঁরা মঙ্গলবার আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে স্মারকলিপি দিয়ে বলেছেন, ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ (১)-এর ধারা অথবা ৪০১-এর ৬ উপধারা মোতাবেক বিশেষ আদেশের মাধ্যমে সরকার খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে পারে। এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ‘কেউ জানে বেঁচে না থাকুক, সেটি আমাদের উদ্দেশ্য নয়’ (প্রথম আলো, ২৩ নভেম্বর ২০২১)। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার বিভিন্ন ধরনের সমালোচনার পরও বলেছেন, তিনি মানবিক আচরণ করেছেন বলেই খালেদা জিয়া বাসায় আছেন, চিকিৎসা পাচ্ছেন।

ইতিমধ্যে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার কারণে সম্ভাব্য ‘গুজব ও বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে’ দেশজুড়ে পুলিশকে সতর্ক অবস্থায় থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং গোয়েন্দা তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে (প্রথম আলো, ২৩ নভেম্বর ২০২১)। সরকারের পক্ষ থেকে এ ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বিএনপি কর্তৃক কিছু কর্মসূচি পালনের পর। সরকারের এ পদক্ষেপ সেসব কর্মসূচির প্রতিক্রিয়া, নাকি সবার জানা নেই, এমন কিছু আশঙ্কার কারণে, সেটা আমরা জানি না। এমন অনুমান করা যেতে পারে যে বিএনপির ওপর আরও বড় ধরনের চাপ সৃষ্টির জন্যও এটা করা হতে পারে। কিন্তু এ ধরনের ‘রেড অ্যালার্ট’ যে আরও বেশি উদ্বেগের সৃষ্টি করবে, সেটা বোধগম্য। এ থেকে এমন অনুমান করাই স্বাভাবিক যে বিএনপি যা বলছে, অবস্থা সম্ভবত তার চেয়ে বেশি খারাপ। বিএনপি খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের ব্যাপারে সব ধরনের রেকর্ড জনসমক্ষে প্রকাশ করছে না কেন, এ প্রশ্ন করা যায়। বলাই বাহুল্য, এ জন্য রোগী হিসেবে খালেদা জিয়ার সম্মতি দরকার হবে। কিন্তু এ ধরনের তথ্য জানালে এটা বোঝা যেত যে আদৌ বিএনপির দাবির যৌক্তিকতা কতটুকু এবং বিপরীতক্রমে সরকার এ ধরনের আবেদন নাকচ করে নৈতিকভাবে ঠিক করছে কি না। স্বচ্ছতার স্বার্থেই বাংলাদেশের নাগরিকদের এটা জানানো বিএনপির দায়িত্ব। সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের দেশের বাইরে চিকিৎসার জন্য পাঠানোর কোনো উদাহরণ আছে কি না, সেটা প্রশ্ন করা যায়। কিন্তু এ ক্ষেত্রে বিষয়টি বিবেচ্য না হওয়াই সমীচীন। বিএনপি ও আইনমন্ত্রী উভয় পক্ষ মানবিক বিবেচনার কথাই বলছে।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews