যুক্তরাজ্য থেকে বাংলাদেশে গিয়ে রহস্যজনক মৃত্যু হওয়া রফিকুলের মেয়ে সামিরাও শেষ পর্যন্ত মারা গেছেন। জানা গেছে শুক্রবার লন্ডন সময় ৮.৩০ মিনিটে ও বাংলাদেশের মধ্যরাত ১টা ৩০ মিনিটে তার শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। ১১ দিন হাসপাতালে কৃত্রিম শ্বাস-প্রশ্বাস যন্ত্র দিয়ে তাকে সাপোর্ট দিয়ে রাখা হয়েছিল।

সামিরার কিডনি ও লিভার কাজ করছিলো না বলে ডাক্তাররা জানান গত ২৮ জুলাই। এরপর থেকে তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলেই ডাক্তার ও পুলিশ বারবার বলেছেন।

গত ২৬ জুলাই সিলেটের তাজপুরে ভাড়া বাসা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয় যুক্তরাজ্য প্রবাসী একই পরিবারের ৫ জনকে। এর মধ্যে রফিকুল ও মাহীকুলকে হাসপাতালে নেয়ার পর ডাক্তাররা মৃত ঘোষণা করেন। তবে রফিকুলের স্ত্রী হুসনে আরা, ছেলে সাদিকুল ও মেয়ে সামিরার অবস্থা আশংকাজনক থাকায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হুসনে আরা ও সাদিকুল সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরলেও সামিরার একবারের জন্যও জ্ঞান ফেরেনি।

তিনি হাসপাতালে ভেন্টিলেশনের সাপোর্টে ছিলেন। এদিকে মৃত রফিকুল ও মাহীকূলের মরদেহ দাফন করা হয় ২৮ জুলাই তাদের গ্রাম উত্তর শরেষপুরে। এ পর্যন্ত এই রহস্যজনক মৃত্যুর কোনো কিনারা হয়নি। সর্বশেষ পুলিশ জানিয়েছে, সন্দেহের তালিকায় খাদ্যে বিষক্রিয়া, বাইরে থেকে স্প্রে এবং পোর্টেবল জেনারেটর থেকে সৃষ্ট কার্বন মনোক্সাইড ধোয়ায় এই বিষক্রিয়া হতে পারে। তবে চট্টগ্রাম থেকে ভিসেরা রিপোর্ট আসার পর জানা যাবে মূল রহস্য।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews