মধুর অনেক গুণ। সর্দি-কাশি থেকে রূপচর্চা সবখানে মধুর ব্যবহার আছে। শুধু তাই নয়, যে কোনো ক্ষত বা সংক্রমণ সারাতেও মধু অনেক উপকারী। সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, মধু হৃদযন্ত্র সংক্রান্ত বিপাকহার নিয়ন্ত্রণ করতেও সক্ষম।

টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণারত বিজ্ঞানীরা পরীক্ষা করে দেখেছেন, মধুতে থাকা জৈব উৎসেচকগুলো রক্তে ‘ফাস্টিং’ সুগার, খারাপ কোলেস্টেরল এবং ফ্যাটি লিভারের সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করে।

মধুর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ এবং অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট থাকে। এ ছাড়া থাকে প্রোটিন এবং অ্যামিনো অ্যাসিড। এই প্রতিটি যৌগ শরীরের জন্য উপকারী।

তবে চিকিৎসকরা বলছেন, রাতারাতি চিনির বদলে মধু খেতে শুরু করলেই যে সব সমস্যার সমাধান হবে, এমনটা কিন্তু নয়। যারা খাবারে কৃত্রিম চিনি ব্যবহার করেন বা মিষ্টি সিরাপ ব্যবহার করেন, তারা এই সব খাবারের বদলে মধু ব্যবহার করা শুরু করতেই পারেন।

ভারতের বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার বিমল ছাজার বলেন, ‘কোনও রকম প্রিজারভেটিভ ছাড়া, খাঁটি মধু স্বাস্থ্যের জন্য অবশ্যই ভালো।’

কিন্তু বাজারে যে সব মধু কিনতে পাওয়া যায়, তার মধ্যে ভেজালের পরিমাণ বেশি। তবে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে নিম, জাম ফুল থেকে সংগৃহীত মধু বিশেষ ভাবে কার্যকর। আবার তুলসি, জোয়ান ফুলের মধু খেলে তা সর্দি-কাশি নিয়ন্ত্রণে রাখে। তবে এই ধরনের মধু চেনা এবং পাওয়া খুবই কষ্টসাধ্য। তাই মধু কেনার ক্ষেত্রে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

সূত্র: আনন্দবাজার



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews