ভারতে করোনার ভয়ে ১৫ মাস ঘরবন্দি ৩ নারী, উদ্ধার করলো পুলিশ

করোনা আক্রান্ত হওয়ার ভীতি মনের মধ্যে গেঁথে গিয়েছিল। তাই ১৫ মাস নিজেদের ঘরবন্দি করে রাখেন ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের একই পরিবারের তিন নারী। ঘটনাটি অন্ধ্রপ্রদেশের পূর্ব গোদাবরী জেলার কাদালি গ্রামের। সোমবার তাদের ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। দীর্ঘ দিন নিজেদের ঘরবন্দি রাখার ফলে অপুষ্টিতে ভুগতে শুরু করেছিলেন তারা। তিন মহিলাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বুধবার (২১ জুলাই) এসব জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের পত্রিকা আনন্দবাজার। প্রতিবেদনে বলা হয়, হাসপাতাল সুপার প্রভাকর রাও জানিয়েছেন, ওই মহিলাদের শরীরে ভিটামিন ডি এবং বি কমপ্লেক্সের অভাব দেখা দিয়েছে। হিমোগ্লোবিনের মাত্রা অত্যাধিক নেমে গিয়েছে। মানসিক ভাবে অসুস্থও হয়ে পড়েছেন মহিলারা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দুই মেয়ে, এক ছেলে এবং স্ত্রীকে নিয়ে কাদালি গ্রামে দীর্ঘ দিন ধরেই বাস করছেন বছর পঞ্চাশের জন বেনি। দেশে কোভিড সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকেই ওই পরিবারের মধ্যে একটা ভীতি ঢুকে যায়। পাশের বাড়ির এক মহিলা কোভিড-আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার পর সেই ভীতি আরও বেড়ে যায়। তার পর থেকেই বেনির স্ত্রী এবং দুই মেয়ে নিজেদের ঘরবন্দি করে ফেলেন।

এভাবেই ১৫ মাস কাটিয়ে দেন তাঁরা। মাঝেমধ্যে বেনি এবং তাঁর ছেলে বাড়ির বাইরে বেরোতেন। কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হতেই বেনি এবং তাঁর ছেলেও বেরোনো বন্ধ করে দেন। বেনির এক আত্মীয় বিষয়টি গ্রাম প্রধানকে জানান। তখন তিনি পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে ঘর থেকে তিন মহিলাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

ইত্তেফাক/এসএ



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews