বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তাদের চাকরি শুরুর পর্যায়ে বেতন-ভাতা নির্ধারণ এবং ছাঁটাই ও পদোন্নতি বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাম্প্রতিক নির্দেশনায় চাপে পড়েছে ব্যাংক খাত। এ ধরনের নির্দেশনা নতুন কর্মসংস্থান ও ব্যাংকের সেবা বাধাগ্রস্ত করবে বলে মনে করছেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা ও পরিচালনার সঙ্গে সম্পৃক্তরা। অবশ্য কর্মীদের একটি অংশ বেতন ও ছাঁটাই ইস্যুতে নির্দেশনাকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন। বিশেষ করে পদোন্নতি ও ছাঁটাইয়ের ক্ষেত্রে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থতাকে বিবেচনায় না নেওয়ার নির্দেশনায় অনেকে খুশি।

ব্যাংকগুলোর কয়েকজন উদ্যোক্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় ব্যাংক মাঝে মাঝে মুক্তবাজার অর্থনীতির বিপরীতমুখী কিছু সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ঋণ গ্রহীতার স্বার্থে এসব ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এর আগে ২০২০ সালের মার্চ থেকে ঋণের সর্বোচ্চ সুদহার ৯ শতাংশ নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে গিয়ে বাধ্য হয়ে আমানতকারীদের ঠকাতে হচ্ছে। আবার করোনার কারণে ২০২০ সালে কেউ এক টাকাও পরিশোধ না করলেও ঢালাওভাবে ঋণ নিয়মিত দেখাতে হয়েছে। ২০২১ সালে ১৫ শতাংশ পরিশোধ করেও নিয়মিত দেখাতে হচ্ছে। করোনার আগেও খেলাপি ঋণ কম দেখানোর জন্য কখনও বিশেষ ছাড়ে খেলাপি ঋণ পুনঃতফসিল, পুনর্গঠনসহ নানা ছাড় দেওয়া হয়। এসব বিষয়ে ব্যাংকগুলো তাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছে। এর মধ্যে বেতন নির্ধারণ এবং ছাঁটাই-পদোন্নতি নিয়ে নতুন নির্দেশনা বাড়তি চাপ তৈরি করেছে ব্যাংকগুলোর ওপর।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গত ২০ জানুয়ারির এক নির্দেশনায় বলা হয়, প্রধান নির্বাহীর নিম্ন পদে কর্মরত কর্মকর্তার সঙ্গে সর্বনিম্ন পদে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীর বেতন-ভাতা যৌক্তিক পর্যায়ে নির্ধারণ করতে হবে। আগামী ১ মার্চ থেকে বেসরকারি ব্যাংকের এন্ট্রি পর্যায়ের কর্মকর্তাদের শিক্ষানবিশকালে নূ্যনতম বেতন-ভাতা হবে ২৮ হাজার টাকা। আর চাকরি স্থায়ী হওয়ার পর নূ্যনতম বেতন ৩৯ হাজার টাকার কম দেওয়া যাবে না। এ ছাড়া চাকরি স্থায়ী করা বা বার্ষিক বেতন বৃদ্ধির জন্য আমানত সংগ্রহের লক্ষ্য অর্জনের শর্ত দেওয়া যাবে না। শুধু লক্ষ্য অর্জন করতে না পারা বা অদক্ষতার অজুহাতে পদোন্নতি থেকে বঞ্চিত করা যাবে না। একজন নিরাপত্তাকর্মী বা অফিস সহায়কের নূ্যনতম প্রারম্ভিক বেতন হবে ২৪ হাজার টাকা।

এ বিষয়ে মন্তব্যের জন্য ব্যাংকের উদ্যোক্তাদের সংগঠন বিএবির চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মজুমদারের সঙ্গে যোগাযোগ করলে এখনই তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে বেসরকারি অন্য একটি ব্যাংকের চেয়ারম্যান সমকালকে বলেন, বিশ্বের কোনো কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে কর্মীর বেতন কত হবে তা ঠিক করে দেওয়ার বিষয়টি তার জানা নেই। এমন নির্দেশনার ফলে বেসরকারি ব্যাংকগুলো গ্রামে সেবা বাড়ানোসহ আর্থিক অন্তর্ভুক্তিমূলক বিভিন্ন কর্মসূচিতে যুক্ত হওয়ার ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়বে।

কয়েকজন ব্যাংকার জানান, এক সময় শুধু রাষ্ট্রীয় ব্যাংকগুলো গ্রামে সেবা দিত। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনার আলোকে এখন বেসরকারি ব্যাংকগুলোর গ্রামে একটি শাখার বিপরীতে শহরে একটি শাখা খুলতে হচ্ছে। যে কারণে নভেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকগুলোর ১০ হাজার ৮৫৯টি শাখার পাঁচ হাজার ১৯১টি গ্রামে। আবার সেবায় বৈচিত্র্য আনার জন্য উপশাখাসহ বিভিন্ন উপায়ে প্রান্তিক পর্যায়ে সেবা দেওয়া হচ্ছে। এসব ক্ষেত্রে সাধারণত ১৮ থেকে ২২ হাজার টাকা বেতনে কর্মী নিয়োগ দেওয়া হয়। অথচ এসব ক্ষেত্রেও এখন চাকরি স্থায়ী হওয়ার পর নূ্যনতম ২৮ হাজার টাকা বেতন দিতে বলা হয়েছে। আবার বর্তমানে পরিচ্ছন্নতাকর্মী, নিরাপত্তাকর্মী বা অফিস সহায়ক নিয়োগ দেওয়া হয় ১২ থেকে ১৮ হাজার টাকা বেতনে। এখন কেন্দ্রীয় ব্যাংক এসব ক্ষেত্রেও এন্ট্রি পর্যায়ে নূ্যনতম ২৪ হাজার টাকা দিতে বলেছে, যা অযৌক্তিক। বাংলাদেশ ব্যাংকেও এসব ক্ষেত্রে চুক্তিভিত্তিক পদে সাকুল্যে ১৭ হাজার টাকা মাসিক বেতন দেওয়া হয়। ঈদের সময়ও তাদের কোনো বোনাস বা অন্য কোনো সুবিধা দেওয়া হয় না। আবার ২০ থেকে ২২ বছর ধরে বাংলাদেশ ব্যাংকে চুক্তিভিত্তিক পরিচ্ছন্নতাকর্মী, নিরাপত্তাকর্মী বা অফিস সহায়ক পদে যারা চাকরি করছেন, তাদের বেতনও ১৭ হাজার টাকা। কেন্দ্রীয় ব্যাংক নিজে যা বাস্তবায়ন করেনি, তা ব্যাংকগুলোর ওপর চাপিয়ে দেওয়ার যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তারা।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, অন্য সংস্থার সঙ্গে বেসরকারি ব্যাংকের বেতন কাঠামো এক করে দেখা ঠিক হবে না। কেননা, ব্যাংকের একজন প্রধান নির্বাহী যে বেতন এবং এন্ট্রি পর্যায়ের কর্মীর বেতনের সঙ্গে যে পার্থক্য, অন্য কোথাও তা নেই। যে কারণে বুঝেশুনেই কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ নির্দেশনা দিয়েছে।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews