মাতারবাড়ী কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট বা মূসক) অব্যাহতি নিয়ে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে জাপানের টানাপোড়েন চলছে। দুই পক্ষই নিজেদের অবস্থানে অনড় থাকায় দুই বছর ধরে চলা এই জটিলতার সুরাহা হচ্ছে না। জাপান বলছে, সমজাতীয় কয়লাভিত্তিক একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে রাশিয়াকে ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। পটুয়াখালীর পায়রা বন্দরে রামনাবাদ চ্যানেলের ক্যাপিটাল ড্রেজিং প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকেও ভ্যাট অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। সে জন্য জাপানও প্রশ্ন তুলেছে, একই সুবিধা অন্যদের দেওয়া হলে তাদের কেন দেওয়া হবে না? অন্যদিকে বাংলাদেশ সরকার ঢালাও সুবিধা দেওয়ার বিপক্ষে। এই নিয়ে উভয় পক্ষ চিঠি চালাচালির মধ্যে আছে।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী ২০১৫ সালে কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার ধলঘাটা ইউনিয়নে ১ হাজার ২০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার মাতারবাড়ী কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের উদ্যোগ নেয় সরকার। সরকারের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত ১০টি প্রকল্পের মধ্যে এটি একটি। ৩৬ হাজার কোটি টাকার এই প্রকল্পে ২৯ হাজার কোটি টাকাই ঋণ দিচ্ছে জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থা (জাইকা)। বাকি ৭ হাজার কোটি টাকা রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে জোগান দেওয়া হচ্ছে।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews