টলিউড নায়িকা নুসরাত জাহান ও নিখিল জৈন এবং  বিচ্ছেদের খবর ভাসছে মাস খানেক ধরে। জানা গেছে, তারা একে অপরের সঙ্গে কথা বলা তো দূরের কথা, মুখ দেখাদেখি বন্ধ! নুসরাত-নিখিলের সোশ্যাল মিডিয়াতে একসঙ্গে ছবি পাওয়া যাবে না। কারণ, অতীতের মধুর ফ্রেমবন্দি মুহূর্ত কেউই আর রাখতে চান না।

তাহলে কি এবার দাম্পত্য ভাঙন স্থায়ী হতে যাচ্ছে? অনেকের মনেই ঘুরপাক খাচ্ছে এই প্রশ্ন। সেই আঁচ আগে থেকে মিললেও এবার তা একবারে প্রকাশ্যে। গুঞ্জন শোনা গেল, নিখিল জৈন নাকি স্ত্রী নুসরাত জাহানের  কাছে বিবাহবিচ্ছেদের দাবি জানিয়েছেন।

আনন্দবাজার পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, নুসরাতকে ডিভোর্স নোটিশ পাঠিয়েছেন নিখিল জৈন। 

যদিও এই খবর পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন নুসরাত জাহান। সোমবার একটি প্রেস বিবৃতি জারি করেন নুসরাত। সেখানে নায়িকা জানিয়েছেন, ‘আমি সকলকে জানাতে চাই আনন্দবাজার পত্রিকা ডিজিট্যালে একটি সংবাদ ঘোরাফেরা করছে, সেটা সম্পূর্ণরূপে ভুল এবং ভিত্তিহীন। মিডিয়ার উচিত কোনও খবর প্রকাশের আগে সঠিকভাবে তথ্য অনুসন্ধান করা, ফেক নিউজের জোয়ারে গা ভাসানো থেকে বিরত থাকা উচিত’।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বলছে, নুসরাত কিংবা নিখিলের কেউই অবশ্য তিক্ত সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ সংবাদমাধ্যমের কাছে। অতঃপর ডিভোর্সের নোটিশ চালাচালি হয়েছে কিনা? সেই প্রশ্নের উত্তরও যে দুই পক্ষ থেকেই আড়াল থাকবে, তা বলাই বাহুল্য। 

এক সংবাদমাধ্যমের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে এই নিয়ে নিখিলকে প্রশ্ন করা হলে, তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন, ‘যা বলার তিনি পরে বলবেন!…’ নেতিবাচক ইঙ্গিতও দেননি। কাজেই এই খবর একেবারেই এড়িয়ে যাওয়ার নয়!

বন্ধু যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে নায়িকার উত্তরোত্তর ঘনিষ্ঠতা নজর এড়ায়নি কারোরই। ‘এস ও এস কলকাতা’র প্রিমিয়ারে স্বামী নিখিলকে সঙ্গে করে নিয়ে আসলেও সদ্য মুক্তি প্রাপ্ত ছবি ‘ডিকশনারি’র প্রিমিয়ারে কিন্তু নুসরাতের পাশে উপস্থিত ছিলেন যশ দাশগুপ্ত।  এছাড়াও রাজস্থানের রোড ট্রিপ, আজমির শরীফ থেকে যশরতের একসঙ্গে দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে পূজা দেওয়া, নজর এড়ায়নি কিছুই। 

অভিনেতার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরও তার বিরোধী পক্ষের সাংসদ বান্ধবীকে জড়িয়ে ভিন্ন প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছে তাকে।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews