বিবিসি বাংলা আমার কাছে জানতে চেয়েছিল, এ ব্যাপারে সরকার বিব্রত কি না। আমার সংক্ষিপ্ত মন্তব্য ছিল, সরকার অতি প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে। সরকারবিরোধীরা এ সুযোগে নানান কথা বলেছে। তার পরিপ্রেক্ষিতে সরকার-সমর্থকেরা এবং সরকারি সংস্থাগুলোকে জবাব দিতে গিয়ে কিঞ্চিৎ বেসামাল মনে হয়েছে। বোঝা যায়, প্রতিক্রিয়া দেওয়ার ব্যাপারে তাদের মধ্যে সমন্বয় ছিল না এবং যথেষ্ট হোমওয়ার্কও করা হয়নি।

আল-জাজিরায় প্রচারিত তথ্যচিত্রটির বিষয়বস্তু নিয়ে আমি এখানে কিছু বলব না। আমাদের সরকারপক্ষ বলছে, এর পেছনে খারাপ মতলব আছে। এটা বাংলাদেশবিরোধী একটি ষড়যন্ত্র। বাংলাদেশে এত উন্নয়ন হচ্ছে, এটা অনেকেরই সহ্য হচ্ছে না। গত কয়েক দিন, বিশেষ করে প্রথম আলোয় পরপর তিন দিন ছাপা হওয়া মতামত ও অনুসন্ধানী প্রতিবেদন থেকে আমরা অনেক তথ্য পেয়েছি। এসব নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। এটা পরিষ্কার বোঝা যায়, আলোচিত তথ্যচিত্রটি এ দেশের রাজনৈতিক বিভাজনকে আরও উসকে দিয়েছে।

এ ধরনের অভিযোগ নতুন নয়। এ রকম অভিযোগ উঠলে তার প্রতিক্রিয়া কেমন হয়, তা-ও শুনতে শুনতে আমাদের গা সওয়া হয়ে গেছে। এটা তো অস্বীকার করার জো নেই যে দেশে মোটা দাগে এখন দুটি পক্ষ—একটি হলো এস্টাবলিস্টমেন্ট বা সরকারপক্ষ, অন্যটি এস্টাবলিস্টমেন্টবিরোধী পক্ষ। সরকারপক্ষ অবশ্য সব অভিযোগকারীকেই ‘বিএনপি’ হিসেবে ব্র্যাকেটবন্দী করে ফেলে। এটা অভ্যাস না ফোবিয়া, তা বলা মুশকিল।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews