নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, ত্যাগের মহিমায় দেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে আরও তীব্র করতে হবে। লাঠিপেটা, কাঁদানে গ্যাস, গুলি, হত্যা আর গুম করে কখনও কোনো ন্যায্য আন্দোলনকে দমানো যায়নি। খুব অচিরেই গণতান্ত্রিক আন্দোলন জয়জুক্ত হবে।

বুধবার গুলশানের বাসভবন থেকে এক ভিডিও বার্তায় তিনি এসব কথা বলেন। করোনা আক্রান্ত হয়ে বাসায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

মান্না আরও বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ার আগে থেকেই সতর্ক করা হয়েছিল। কিন্তু সরকার তাতে গুরুত্ব দেয়নি। এখন দেশে পর্যাপ্ত পরীক্ষা হচ্ছে না, হাসপাতালে চিকিৎসা নেই। চারদিকে হাহাকার শুরু হয়েছে। এর মধ্যে সরকার লকডাউন ঘোষণা করেছে। তবে তাদের এ সিদ্ধান্তও কেউ মানছে না। রাস্তায় জনগণ বিক্ষোভ করছে। তিনি বলেন, দেশে একদিনের জন্যও লকডাউন হয়নি। কোনো পূর্বপ্রস্তুতি ছাড়া, কর্মজীবী ও গরিবদের সহযোগিতার ব্যবস্থা না করে এ লকডাউনের সিদ্ধান্ত কেউ মানছে না।

হেফাজতে ইসলামের নেতা মামুনুল হকের নাম উচ্চারণ না করে মান্না বলেন, সরকার সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়ে এখন নেতাদের চরিত্র নিয়ে সংসদে অপবাদ দিচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ বিষয়ে বক্তব্য দিয়েছেন। এর মাধ্যমে এই সংসদকে অপবিত্র করেছেন, প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন। রাতের ভোটের মাধ্যমে যে সংসদ গঠন করা হয়েছে, তাতে আগে থেকেই মানুষের শ্রদ্ধা নেই।

তিনি বলেন, দেশের এই সামগ্রিক পরিস্থিতিতে জোর-জুলুমের শাসন চলবে না। গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিতে হবে, মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। কথা বলার অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। গরিব মানুষের অধিকার সবার আগে ফিরিয়ে দিতে হবে। সবাই মিলে এই সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে হবে।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews