করোনার এই মহাদুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের উচিত আমলাদের বাদ দিয়ে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেয়া বলে মন্তব্য করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

বুধবার (৭ এপ্রিল) রাতে জাগো নিউজের সঙ্গে আলাপকালে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ‘বর্তমান করোনা পরিস্থিতি অবনতির মূল দায় সরকারের। দায়ের জায়গাটা হলো- জনগণকে সচেতন করে জনগণকে এর সাথে লিংক করা। সরকারের দায়িত্ব হলো- হঠকারিতা না করা। সরকারের প্রতিটা ভালো কাজও হঠকারিতার সমতুল্য হয়ে যাচ্ছে।’

উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, ‘গণপরিবহনে অর্ধেক যাত্রী নিতে বলেছে; ভালো কথা। তাতে সংস্পর্শ কম হবে। বাকি অর্ধেক যাত্রীর কী হবে? তাদের রোগ-শোক হলে তারা কি হাসপাতালে যাবে না? তারা অফিস আদালতে যাবে না? কাজকর্মে যাবে না? তাহলে উপায়টা কী? উপায় খুব সোজা। আমাদের দেশে যেগুলোকে নাইট কোচ বলি বা রাতের বেলা ইন্টার ডিসট্রিক্ট যায়; সেগুলোও তো এখন বন্ধ আছে। গেলেও অসুবিধা নাই। দিনের বেলা তো ওই বাসগুলো বসে থাকে। সেনাবাহিনীতে বহু মানসম্মত চালক আছে। তাদেরকে দিয়ে দিনের বেলা এই গাড়িগুলো চালানো যেতে পারে শহরের মধ্যে। তাহলে বাসের ভিড় কমে যাবে। লোকের যাতায়াতে অসুবিধা হবে না।’

গণস্বাস্থ্যের এই প্রতিষ্ঠাতা আরও বলেন, ‘ন্যায্যতার একটা ব্যাপার আছে। সরকার ফুটপাতের দোকানপাট বন্ধ করে দিয়েছে। তারা খাবেটা কী? কাজেই এসব জায়গায় সবকিছুরই একটা সম্মিলিত প্রচেষ্টা দরকার সরকারের। সরকারের আমলাদেরকে বাদ দিয়ে বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলাপ করা উচিত। বিরোধী দলকে সঙ্গে নেয়া উচিত। এই দুর্যোগ মোকাবিলায় সবাইকে নিয়ে সরকারকে এগোতে হবে।’

পিডি/এমআরআর



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews